স্বল্প সময়ে বাংলাদেশ বড় সফলতা অর্জন করেছে : বার্নিকাট

 

স্বল্পতম সময়ে বিভিন্ন ক্ষেত্রে বাংলাদেশের অগ্রগতির প্রশংসা করে মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্শিয়া স্টিফেনস ব্লুম বার্নিকাট বলেছেন,এই বড় সফলতা দেশকে এগিয়ে নেওয়ার সফল পরিকল্পনার ফসল। উন্নয়ন অংশীদার হিসেবে বাংলাদেশের এই অব্যাহত উন্নয়নে যুক্তরাষ্ট্র আনন্দিত।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের এই সাফল্য কেবল বিনিয়োগ বাড়াতেই সাহায্য করবে না বরং শিক্ষা ও স্বাস্থ্য ক্ষেত্রের অগ্রগতিকে বেগবান করতে সহায়ক হবে। যা দেশের অগ্রগতিকে আরো সুদৃঢ় করবে ।

বুধবার পরিকল্পনা মন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সাথে তার দপ্তরে সৌজন্য সাক্ষাৎকালে মার্কিন রাষ্ট্রদূত এসব কথা বলেন। এসময় পরিকল্পনামন্ত্রী বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যকার বিদ্যমান চমৎকার বন্ধু প্রতীম সম্পর্কের কথা তুলে ধরে বলেন, যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশের অকৃত্রিম বন্ধু।তিনি বাংলাদেশের চলমান অগ্রগতি আরো বেগবান করতে যুক্তরাষ্ট্রের অধিকতর সহযোগিতা চান।বলেন,বাংলাদেশ বিনিয়োগের জন্য একটি আকর্ষনীয় স্থান।এখানকার সুদৃঢ় সামাজিক নিরাপত্তা ও দক্ষ জনশক্তিসহ বিনিয়োগের প্রতিটি উপাদান সহজলভ্য এবং লাভজনক ।

তিনি সরকারের বিনিয়োগ বান্ধব নীতির সুযোগ কাজে লাগিয়ে বিভিন্নখাতে মার্কিন ব্যবসায়ীদের বিনিয়োগের আহবান জানান।

কামাল বলেন, বাংলাদেশের কারিগরি জ্ঞান সম্পন্ন জনসংখ্যা বর্তমানে শতকরা দশভাগে উন্নীত হয়েছে।আগামী ২০৩০ সালের মধ্যে প্রকৃত জ্ঞানভিত্তিক অর্থনীতি গড়ে তোলার লক্ষ্য নিয়ে সরকার কাজ করছে এবং এই লক্ষ্য অর্জনে আমরা প্রতিজ্ঞাবদ্ধ।

আগামী দশ বছরে শিক্ষার হার শতভাগ হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন। সাক্ষাৎকালে তারা পারস্পরিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয় নিয়ে মত বিনিময় করেন ।

Pin It

Comments are closed.