স্পর্শকাতর জায়গায় ভাবির আঘাতে দেবরের মৃত্যু

জমি-জমা নিয়ে বিরোধ ও পারিবারিক কলহের জের ধরে এক ভাবি তার দেবরকে খুন করেছেন।

শুক্রবার সকালে জামালপুরের সরিষাবাড়ী পৌর শিমলা বাজার নিউ কলোনীতে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত দেবরের নাম প্রদীপ কুমার ঘোষ। খুনের ঘটনায় ভাবি বিবা ঘোষ ও ভাতিজা পিযূস ঘোষকে আটক করেছে পুলিশ।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বাড়ির ভিটার ২ শতাংশ জমি নিয়ে বড় ভাই গোবিন্দ ঘোষের সঙ্গে প্রদীপ কুমার ঘোষের বিরোধ চলছিল। এরই জের ধরে বৃহস্পতিবার রাতে দুই পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। এ সময় প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে পরিস্থিতি শান্ত করে।

পরদিন শুক্রবার সকাল ১১টার দিকে ভাবি ও দেবরের মধ্যে হাতাহাতি শুরু হয়। এক পর্যায়ে ভাবি বিবা ঘোষ ক্ষুব্ধ হয়ে লাঠি দিয়ে দেবর প্রদীপ কুমার ঘোষের পুরুষাঙ্গে আঘাত করে। এতে সঙ্গে সঙ্গেই মাটিতে লুটে পড়েন প্রদীপ।

পরে দ্রুত সরিষাবাড়ী হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন। বিকালে লাশ ময়নাতদন্তের জন্যে জামালপুর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠায় পুলিশ।

সরিষাবাড়ী থানার ওসি রেজাউল ইসলাম খান জানান, পৌর শিমলা বাজার নিউ কলোনী বাসিন্দা গোবিন্দ ঘোষের সঙ্গে তার ছোট ভাই প্রদীপ কুমার ঘোষের পারিবারিক কলহ চলছিল। এর জের ধরে ভাবি বিবা ঘোষ ক্ষুব্ধ হয়ে দেবর প্রদীপ কুমার ঘোষের পুরুষাঙ্গে আঘাত করেন। এতে প্রদীপ মারা যান বলে ধারণা করা হচ্ছে।

তবে ময়নাতদন্ত রিপোর্ট পাওয়ার পর এ বিষয়ে বিস্তারিত জানা যাবে বলে তিনি জানান। সূত্র: যুগান্তর

Pin It

Comments are closed.