লালমনিরহাটে ছবির শুটিংয়ে ব্যস্ত মাহিয়া মাহী

নিউজ ডেস্ক :: লালমনিরহাটে প্রথমবারের মত দীর্ঘ সময় ধরে বাংলা চলচ্চিত্রের শুটিং হচ্ছে। ইমপ্রেস টেলিফিল্মের প্রযোজনায় বাংলা চলচ্চিত্রের নতুন ছবি ‘মন দেব মন নেব’ শুটিংয়ে লালমনিরহাটে ব্যস্ত সময় পার করছে সময়ের জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহী। চলতি অক্টোবর মাসের প্রথম সপ্তাহ থেকে লালমনিরহাট জেলা শহরের রেলষ্টেশন, সাপটানা, নামাটারীসহ বিভিন্ন এলাকায় ছবিটির চিত্র ধারণে অংশ নেন তিনি। ইমপ্রেস টেলিফিল্মের প্রযোজনায় ছবিটি পরিচালনা করছেন তরুণ চলচ্চিত্র নির্মাতা রবিন খান।

লালমনিরহাটের কৃতি সন্তান রবিন খান বলেন, ‘গত ২৫ শে সেপ্টেম্বর থেকে লালমনিরহাটের বিভিন্ন লোকেশনে গিয়ে আমরা টানা শুটিং করছি। গল্পের প্রয়োজনে গ্রামীণ আবহে শুটিংয়ের প্রয়োজনে জন্মস্থান লালমনিরহাটে পুরোসেট নিয়েই আমরা কাজ করছি।

ছবির বিষয় জানতে চাইলে তরুণ এ নির্মাতা বলেন, ’অন্যান্য গল্পের মত নয় ‘মন দেব মন নেব’ ছবিটি। একই পরিবারের দুই বোন। বড় বোন স্কুলের শিক্ষক। এক সময় সমাজের প্রভাবশালী একজনের নজরে পড়ে সে। স্বভাবে দুষ্টু ওই প্রভাবশালী ব্যক্তির সঙ্গে শুরু হয় বড় বোনের দ্বন্দ্ব। তার কুদৃষ্টি থেকে বাঁচতে দুই বোন মিলে গড়ে তোলে প্রতিরোধ। এভাবেই এগিয়ে যাবে আমার ছবির কাহিনি।’ রবিন আরও বলেন, ‘ছবিটি আসলে রোমান্টিক, অ্যাকশন ও কমেডি ঘরানার। বিভিন্ন মনোরম লোকেশনে এর দৃশ্যধারণ করা হচ্ছে। আশা করি, ছবিটি দেখে দর্শকদের ভালো লাগবে।’ ছবিতে মাহির বড় বোনের চরিত্রে দেখা যাবে প্রবীণ অভিনেত্রী কবরী সারোয়ারকে। নায়কের চরিত্রে থাকছেন তরুণ অভিনেতা শিবলী। এছাড়াও ছবির বিভিন্ন চরিত্রে সুব্রত ও সুজাতাসহ আরও অনেকেই অভিনয় করছেন।

একান্ত সাক্ষাৎকারে চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহী বলেন, ১৯৯০ সালের ২৭ অক্টোবর রাজশাহী, তানোর উপজেলা এর মুন্ডুমালায় জন্মগ্রহণ করেন। চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল উপজেলার ইসলামপুরের জামতলা এলাকায় এবং সেখানেই তাঁর বাপ-দাদাসহ সকল পূর্বপুরুষের স্থায়ী বসবাস। তাঁর পিতার নাম আবু বকর এবং মাতার নাম দিলারা ইয়াসমিন। সিনেমা জগতের নাম ‘মাহিয়া মাহী’ হলেও তাঁর পারিবারিক নাম ‘শারমিন আখতার নিপা’। শৈশব-বাল্যজীবনের বেশির ভাগ কেটেছে নাচোল, মুন্ডুমালা, রাজশাহী এবং ঢাকাতে। ঢাকা উত্তরা হাই স্কুলে প্রাথমিক-মাধ্যমিক এবং ২০১২ সালে তিনি ঢাকা সিটি কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক শেষ করেন। বর্তমানে তিনি শান্ত-মারিয়াম ইউনিভার্সিটি অফ ক্রিয়েটিভ টেকনোলজি থেকে ফ্যাশন ডিজাইনিং এর উপর পড়াশুনা করছেন।

বাংলা চলচ্চিত্রের চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহী আরও বলেন, তিনি বাংলাদেশী ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে ২০১২-এ অভিষেক হয়ে “ভালবাসার রং” ছবিটি পর্দাপন করেন মাহী বাংলাদেশের একজন হাই প্রোফাইল অভিনেত্রী। মাহিয়া মাহী সিনেমা অভিষেক করেন জাজ মাল্টিমিডিয়ার ছবি ভালবাসার রং ২০১২ ও ২০১৩ সালে তিনি ৪টি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন; অন্যরকম ভালবাসা, পোড়ামন, ভালবাসা আজকাল, এবং তবুও ভালবাসা। ২০১৩ সালে মাহিয়া মাহীর পরপর ৩টি ছবি বাক্স অফিস ব্লকবাস্টার হয়। তিনি ২০১৪ সালে “অগ্নি” এবং দেশা- দা লিডার চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। এছাড়া কলকাতায় দুই বাংলার ঐক্য ছবি রোমিও ঠং জুলিয়েট-এ অভিনয় করেছেন।

Pin It

Comments are closed.