লালমনিরহাটকে সমবায় ব্রান্ডিং জেলা হিসেবে ঘোষনা

সারা দেশের ৬৪টি জেলাকে বিভিন্ন ক্ষেত্রে ব্রান্ডিং ঘোষনা এবং বাস্তবাযনের জন্য সরকার নির্দেশনা দিয়েছেন। সেই আলোকে গত ২১ আগষ্ট জেলা উন্নয়ন ও সমবায় কমিটির সভায় জেলা প্রশাসক হাবিবুর রহমান সর্ব সম্মতিক্রমে লালমনিরহাট জেলাকে সমবায় ব্রান্ডিং জেলা হিসাবে ঘোষনা দেন।

সমবায়কে তৃতীয় আর্থিক সেক্টর হিসাবে আখ্যায়িত করা হয়েছে। দেশে তিন ধরনের মালিকানার স্বীকৃতি রয়েছে। প্রথমতঃ রাষ্ট্রীয় মালিকানা, দ্বিতীয়তঃ ব্যাক্তি মালিকানা, তৃতীয়ত সমবায়ীদের যৌথ মালিকানা।তাই সমবায় সমিতি গনতান্ত্রিক ভাবে পরিচালিত একটি আর্থিক প্রতিষ্ঠান। যার মাধ্যমে সমবায় সমিতির সদস্যরা তাদের আর্থ-সামাজিক অবস্থার উন্নয়ন নিশ্চিত করতে পারেন।

লালমনিরহাট জেলায় সমবায় বিভাগের ৬৩১টি প্রাথমিক সমবায় সমিতি রয়েছে। তম্মধ্যে ৭টি এ গ্রেড,২৯৬টি বি গ্রেড ৩৩৬টি-সি গ্রেড সমিতি রয়েছে।

অন্য দিক‌ে পল্লী উন্নয়ন বোর্ড ভুক্ত ৭টি কেন্দীয় সমিতি ও ৬৭৬টি প্রাথমিক সমবায় সমিতি রয়েছে। জেলায় সর্ব মোট সমিতির সংখ্যা ১হাজার ৩শত ২২টি। সদস্য সংখ্যা প্রায় ৭৫ হাজার।

এ গ্রেড ৭টি সমিতিতে ২৪০জন লোকের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা রয়েছে । তাছাড়াও সমিতির গৃহীত প্রকল্পে সরাসরি কর্মরত রয়েছেন ৭৫০জন।অত্র জেলায় প্রধান মন্ত্রীর অগ্রাধিকার আশ্রয়ন,আশ্রয়ন ফেইজ-২,আশ্রয়ন -২ এর মোট প্রকল্প রয়েছে ৩২টি।

এই প্রকল্প গুলোতে ক্রম পুন্জিভুত আকারে ২কোটি ৬৭লাখ টাকা ঘুনায়মান তহবিল হিসেবে বিনিয়োগ রয়েছে। এতে সুবিধাভোগী পরিবারের সংখ্যা ২হাজার ৪৪০।

Pin It

Comments are closed.