ভারতে ৬৫ বছরের বৃদ্ধাকে ‘ধর্ষণ’ করে খুন

গলায় গামছার ফাঁসে নিথর দেহটা পড়ে। পরনের সায়াটা নাভিমূলের কাছে জড়ো করা। যোনিদ্বার দিয়ে চুঁয়ে পড়া রক্ত। ছেঁড়াখোঁড়া ব্লাউজ। কামড়ে কামড়ে ক্ষতবিক্ষত। শরীর জুড়ে রয়েছে আরও অনেক আঁচড়ের দাগ।

মহিলার স্বজনদের দাবি, ধর্ষণ করে খুন করা হয়েছে। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশেরও সন্দেহ তাই। এমনকী গণধর্ষণের সম্ভাবনাও উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না।

মঙ্গলবার রাতে দক্ষিণ বিধাননগরের সুকান্তনগর থেকে উদ্ধার হয়েছে বছর ৬৫-র এই বৃদ্ধার দেহ। নিজের ঘরেই তাঁকে খুন করা হয়েছে। মৃতার স্বজনরা অভিযোগ করেন, ধর্ষণ করে খুনের পর লুঠপাটও চালিয়েছে দুষ্কৃতীরা। মহিলার কানের দুলও খুলে নেওয়া হয়েছে।

প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের সন্দেহ, ধর্ষণের পর ওই বৃদ্ধাকে গলায় গামছার ফাঁস জড়িয়ে খুন করা হয়েছে। লুঠপাটে বাধা দেওয়াতেই শারীরিক অত্যাচার করে খুন কি না, তা এখনও পরিষ্কার নয়।

রাতেই দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে দক্ষিণ বিধাননগর থানার পুলিশ। তবে, এখনও কেউ ধরা পড়েনি।

সূত্র: এইসময়

Pin It

Comments are closed.