‘বিএনপি স্বৈরাচারী দল, আ’লীগের জনপ্রিয়তা শূন্যের কোটায়’

IMG_২০১৬০৮০৭_০৪৪৪০৩

 

জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়্যারম্যান সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, ‘বিএনপি স্বৈরাচারী দল। তারেক জিয়ার নাম শুনলে এদেশের মানুষ ভয় পায়। তারা বিএনপি চায় না। আর আওয়ামী লীগের জনপ্রিয়তা শূন্যের কোটায়। ফলে এই দুই দলের দ্বারা দেশের উন্নয়ন সম্ভব নয়। তাই জাতীয় পার্টিকে সংগঠিত হয়ে ক্ষমতায় যেতে হবে।’
গতকাল শনিবার রাত পৌনে ৯ টায় রংপুর নগরীর সেন্ট্রাল রোডে দলীয় কার্যালয়ে জেলা ও মহানগর জাতীয় পার্টির নেতা কর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এসব কথা বলেন তিনি।

এরশাদ বলেন, ‘জাতীয় পার্টির শাসনামলে নূর হোসেন ও ডাক্তার মিলন মারা যাওয়ায় তাকে স্বৈরাচার বলা হয়। এখন প্রতিদিন কত মানুষ মরছে তার কোনো হিসেব নেই। তা হলে কে স্বৈরাচার?’

গত ৭ বছরে দেশ থেকে হাজার কোটি টাকা দেশের বাইরে পাচার হয়ে গেছে বলেও এসময় মন্তব্য করেন তিনি।

এরশাদ বলেন, ‘ইউনিভার্সিটির পাশ করা কিছু শিক্ষার্থীরা এখন টাইম বোমা। এরা কখন কি করবে বুঝা যায় না। এর কারণ বেকারত্ব। পাশ করে চাকরি না পওয়ার ফলে এরা সন্ত্রাস ও মাদকে জড়িয়ে পড়ছে। এদের চাকরির ব্যবস্থা করতে না পারলে দেশে আরো ভয়াবহ পরিস্থিতি সৃষ্টি হবে।’

জাপা চেয়ারম্যান বলেন, ‘রংপুরে জাতীয় পার্টির ২২টি আসন ছিল। এখন মাত্র হাতে গোনা ৬টি। রংপুর জেলায় ৪টি আসন হাত ছাড়া হয়ে গেছে যোগ্য প্রার্থী না থাকার কারণে।এ আসনগুলো ফিরিয়ে আনতে হবে। আর এ জন্য দলের সবাইকে এক হয়ে কাজ করতে হবে।’

সাবেক রাষ্ট্রপতি রংপুর জেলা ও মহানগর জাতীয় পার্টির কোন্দল মিটিয়ে ফেলতে নির্দেশ দিয়ে নেতাকর্মীদের বলেন, ‘এই কোন্দলের কারণে দল সামনের দিকে এগুচ্ছে না।’

তিনি দলীয় কোন্দল নিরসন করে আগামী নির্বাচনে যোগ্য প্রার্থী গড়ে তোলার জন্য নেতা কর্মীদের নির্দেশ দেন।

মতবিনিময় সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, পার্টির কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের, জেলা জাপার আহ্বায়ক মোফাজ্জল হোসেন মাস্টার, মহানগর জাপার আহ্বায়ক মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা, সদস্য সচিব ইয়াসির আহমেদ।

Pin It

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।