প্রতিটি স্মার্টফোনেই থাকে খাঁটি সোনা, আপনার ফোনেও আছে

আপনার স্মার্টফোনও সোনা আছে। আইফোন হলে তো কথাই নেই। সাধরণ স্মার্টফোন তৈরি করতেও লাগে সোনা। একটি স্মার্টফোনে সামান্য পরিমাণে সোনা থাকলেও গোটা বিশ্বে যত স্মার্টফোন ব্যবহার করা হয় তার হিসেব কষলে মোট সোনার পরিমাণটাও কম নয়।

একটি গবেষণা বলছে, খনি থেকে তোলা এক টন কাঁচা সোনা থেকে যতটা ব্যবহারযোগ্য সোনা পাওয়া যায় তার থেকে বেশি সোনা পাওয়া যায় এক টন বাতিল করা স্মার্টফোন থেকে। তাও আবার ব্যাটারি বাদ দিয়ে ওজন করার পরে। ভারতের ইলেকট্রনিক ওয়েস্ট সংক্রান্ত রিপোর্টের দাবি, ৪১টি ফোন থেকে ১ গ্রাম সোনা পাওয়া যায়।

সোনা খুব ভাল তরিৎবাহী ধাতু। সেই কারণে, ফোনের চিপের ভিতরে সোনা ব্যবহার করা হয়। ভাল সিগন্যাল পাওয়ার জন্যও ফোনে সোনার ভূমিকা রয়েছে। শুধু সোনাই নয়, স্মার্টফোন তৈরি করতে রুপো এবং প্ল্যাটিনিয়ামও ব্যবহার করা হয়। তাহলে স্মার্টফোনের দাম বেশি হবে না কেন?

একটি আইফোনে ০.০০১২ আউন্স সোনা থাকে। এছাড়াও ০.০১২ আউন্স রুপো এবং ০.০০০০১২ আউন্স প্ল্যাটিনাম থাকে। এছাড়াও যথাক্রমে ৫ সেন্ট ও ১২ সেন্ট করে অ্যালুমিনিয়াম ব্যবহৃত হয়।

Pin It

Comments are closed.