প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

প্রেস ক্লাবেরর কর্মকর্তাদের নিন্দা
গত ১ সেপ্টেম্বর দৈনিক প্রথম খবর পত্রিকার শেষের পাতার ৪ কলামে “প্রেস ক্লাব লালমনিরহাট থেকে সংগ্রাম ও নয়াদিগন্ত প্রতিনিধির সদস্য পদ অব্যাহতি” শিরোনামে প্রকাশিত ও একই সংবাদ দৈনিক খোলা কাগজ, বাংলা টিবিউনে এবং দৈনিক প্রথম আলোতে প্রকাশ করা হয়। উক্ত সংবাদটি আমার দৃষ্টি গোচর হয়েছে। প্রকৃত পক্ষে প্রেস ক্লাবের গুরুত্বপূর্ন ফাইল পত্র, ফাইল কেবিনেট, ২৬পিস টিন, ফ্যান, চেয়ার, টিউবয়েল ও প্রেস ক্লাবের জায়গা বিক্রির হোতা এবং প্রচারে সিন্ডিকেট সহ নানা অভিযোগ মিলে ১১ দফা সম্মলিত দাবি তুলে গত ২১ আগষ্ট লালমনিরহাট প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে কার্যনির্বাহী পরিষদের ১০ জনের মধ্যে ৬ জনের স্বাক্ষরিত সাংবাদিক সভাপতি বরাবরে অনাস্থা পেশ করেন। এ অনাস্থা আড়াল করতে কথিত অভিযোগ তুলে ২ জন সদস্যকে অব্যাহতি প্রদানের চেষ্টা করছে। অপর দিকে এ অগনন্ত্রাতিক ও অবৈধ ভাবে বিষয়টি ২৭ জন সদস্যকে না জানিয়ে হঠাৎ সভাপতি/সাবেক সাধারণ সম্পাদক নিজের মন গড়া বহিস্কার পত্র জারি করে এবং কতিপয় সাংবাদিক কে ওই কাগজের ফটোকপি সরবরাহ করে উস্কানিমুলক সংবাদ প্রচারের জন্য উদ্ধ করেন। কিন্তু সংশ্লিষ্ট সংবাদদাতা কোন খোজ খবর না নিয়ে মিথ্যা ও বিভ্রান্তিকর খবর প্রকাশ করায় গত বৃহস্পতিবার দুপুরে প্রেস ক্লাবে জরুরী বৈঠক করে ইহার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানায়। ওই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন প্রেস ক্লাবের সহ-সভাপতি মোঃ লিয়াকত আলী (সাংবাদিক), সহ-সভাপতি মোঃ জাহিদ হোসেন (সাংবাদিক), যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মোঃ আসাদুল ইসলাম সবুজ (সাংবাদিক), দপ্তর ও যোগাযোগ সম্পাদক মোঃ লাভলু শেখ (সাংবাদিক), ক্রিড়া সম্পাদক মোঃ রিয়াজুল ইসলাম রিয়াজ (সাংবাদিক) ও কার্যনির্বাহী সদস্য মোঃ আলতাফুর রহমান আলতাফ (সাংবাদিক)। অবিলম্বে সাংবাদিক মোঃ লাভলু শেখের বিরুদ্ধে কথিত অভিযোগ প্রত্যাহার, বির্তকিত ওই সম্পাদকের স্থলে সদস্যদের মতামতের ভিত্তিতে সাধারণ সম্পাদকের পদ নির্বাচিত করার আহবান জানান। অন্যথায় কঠোর অান্দোলনের হুশিয়ারী দেন সাংবাদিকরা।

Pin It

Comments are closed.