পাটগ্রামের সাত ইউপি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার সাত ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) নির্বাচনের তফসিল গত রোববার ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন। এই সাত ইউনিয়নে বিলুপ্ত ছিটমহল অন্তর্ভুক্ত।

নির্বাচন কমিশনের ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন ৬ অক্টোবর। যাচাই-বাছাই ৭ অক্টোবর, প্রত্যাহার ১৪ অক্টোবর এবং ভোট গ্রহণ ৩১ অক্টোবর। ওই সাত ইউনিয়ন হলো পাটগ্রাম সদর, কুচলিবাড়ি, জগৎবেড়, বাউড়া, জোংড়া, শ্রীরামপুর ও বুড়িমারী।

পাটগ্রাম উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নূর কুতুবুল আলম বলেন, সাতটি ইউনিয়নে বিলুপ্ত ছিটমহল অন্তর্ভুক্ত হওয়ায় ছিটমহলবাসী এবার ভোট দিতে পারবেন।

গতকাল বুধবার বিকেলে উপজেলার ১১৯, ১১২ ও ১৫ নম্বর বাশঁকাটা ছিটমহল এবং ১৪ নম্বর লতামারী ছিটমহলে গিয়ে দেখা যায়, বাসিন্দারা নির্বাচনের খবরে বেশ খুশি। মাঠে-ঘাটে-রাস্তা ও বাড়ির উঠানে দলবদ্ধ হয়ে নির্বাচন নিয়ে তাঁরা আলোচনায় মেতেছেন। এ সময় ছিটমহলের বাসিন্দা রফিকুল ইসলাম (৫০) বলেন, ‘হামরা স্বাধীন দেশের স্বাধীন নাগরিক হইনো বাহে। এলা ভোটও দিবার পামো। আগোত (আমাদের) প্রতিবেশী ভাইয়ের ঘোর ভোটের সময় ভোট দিবার যায়, আর হামরা খালি দেখি। মনত ভোট দিবার জাগে। এলা নিজেই মনের ভোট দিবার যামো বাহে, মনের মতোন মানষিকে (মানুষ) ভোট দিবার পামো। চেয়ারম্যন, মেম্বার পামো। এলা হামার জন্য আনন্দের আর শেষ নাই।’

৪২ বছর বয়সী নূরনাহার অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে বলেন, তাঁর ভাষায়, ‘কী কমো বাহে! দেখেছেন না বাহে, হামরা বাংলাদেশি হইছি! এ জন্য আনন্দ-উল্লাস করিছি। এলা হামরা ভোটার হইছি!’

বাশঁকাটার বৃদ্ধ বাহের আলী (৬০) বলেন, ‘বাহে ভোটার হওয়ার পাওয়ায় জীবনে একটি তিরিপ্তি (তৃপ্তি) পানুং। ছিটমহল থাকা অবস্থাত কখনো চিন্তাও করং নাই যে ভোট দিবার পাইম। সেই আশা এলা পূরণের পথে। ভোটার তালিকায় নাম যখন হইছে, উঠিছে—এবার ভোট দিবার পাইম।’

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে লালমনিরহাট জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ফজলুল করিম বলেন, ওই সাত ইউনিয়নে বিলুপ্ত ছিটমহল রয়েছে। এ কারণে নির্বাচন স্থগিত করেছিল নির্বাচন কমিশন। তবে নতুন তফসিল অনুযায়ী আগামী ৩১ অক্টোবর ভোট হবে।

Pin It

Comments are closed.