ধর্ষণের ভিডিও সিডি বিক্রির বাজার

IMG_২০১৬০৮০৪_২৩১২৩৬

 
ছোট ছোট দোকান। মোবাইল রিচার্জ, ফটোকপি বা গান ছবি ডাউনলোড করা হয়। কিন্তু অস্বাভাবিক ভিড় দেখলে যে কারও কৌতূহল জাগবে। কী এমন আছে এসব দোকানে যে ক্রেতাদের উপচে পড়া ভিড়!

ভারতের উত্তরপ্রদেশ রাজ্যের আগ্রা এলাকায় বেশ কয়েকটি বাজারে এমন দোকান দেখা যায়। অবিশ্বাস্য হলেও সত্যি, এসব দোকানে প্রকাশ্যে বিক্রি হচ্ছে ধর্ষণ ও গণধর্ষেণের ভিডিও। এসব ভিডিও বিক্রি হচ্ছে ৫০ রুপি থেকে ১৫০ রুপিতে। যেন এখানে ধর্ষণের ভিডিও বিক্রি হয়।

অবশ্য পুলিশের চোখ ফাঁকি দিতে একটু কৌশলী দোকানিরা। বিশ্বস্ত এবং চেনা মুখ ছাড়া কাউকেই এই ভিডিও তারা দেখায় না।

আগ্রার এক দোকানদারের ভাষ্যমতে, বেশিরভাগই সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করা ভিডিও। কখনো কখনো ধর্ষণকারীরাই এগুলো পোস্ট করে। আবার অনেক সময় কেউ একজন এসব ভিডিও করে সরাসরি দোকানে দিয়ে যায়। বাণিজ্যিক ভিত্তিতেও করে অনেকে। দূর থেকে কোনো ধর্ষণের ভিডিও রেকর্ড করে দোকানে এসে বিক্রি করে। এধরনের ‘এক্সক্লুসিভ’ ভিডিও-র দামও বেশি হয়। এসব ভিডিওর মধ্যে যেমন আছে সাজানো নাটক আর সত্যিকারের ধর্ষণের ঘটনাও আছে। ক্রেতাদের পছন্দমতো ভিডিও তাদের মোবাইল বা পেনড্রাইভে ডাউনলোড করে দেন দোকানিরা।

এ ব্যাপারে আগ্রার এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, বেশ কিছু দিন আগে খবর পেয়ে তাজগঞ্জ এবং সর্দার এলাকার বাজারে অভিযান চালিয়ে এক দোকানিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। তারপর থেকে তারা আরও বেশি সতর্ক হয়ে পড়েছে।

তিনি জানান, শুধু এই দুই এলাকাতেই নয়, বেলাগঞ্জ, বালকেশ্বর, কামলানগরের মতো উত্তরপ্রদেশের আরও অনেক এলাকায় এই ধরনের ভিডিও কেনাবেচা চলছে। পুলিশ এ নিয়ে বেশ চিন্তিত।

সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

Pin It

২ thoughts on “ধর্ষণের ভিডিও সিডি বিক্রির বাজার

  1. অজ্ঞাতনামা কেউ একজন ২১/০৭/২০১৭ at ৪:০২ পূর্বাহ্ন -

    ১ নং কুলাঘাট ইউ: গ্রাম, বনগ্রাম। বিগত জাবত কিছু লোক মানব সমাজকে তামাক দ্রব্য কেনাবেচা করে এলাকাটাকে নষ্ট করে ফেলছে, কেউ এর প্রতিবাদ করে না তাদের নাম হল১’ সোহেল, পিতা মোকছেদ মাস্টারর।২,রফিকুল,পিতা আববাস আলি,৩ মজনু মিয়া, ভাইয়ের নাম, আকবর আলি, ৪ আছির আলি, পিতা নেছার উদিদন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।