তিস্তা নদীতে বিজিবি সদস্য নিখোঁজ, উদ্ধারে অভিযান

জিন্নাতুল ইসলাম জিন্না :: লালমনিরহাটের দহগ্রাম সীমান্তে তিস্তা নদীতে ভারতীয় গরু পাচার প্রতিরোধ করতে গিয়ে নিখোঁজ হয়েছেন বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সদস্য ল্যান্স নায়েক সুমন মিয়া (৩০)।

মঙ্গলবার সকালে নিখোঁজ হওয়া এ বিজিবি ল্যান্স নায়েককে উদ্ধারে তিস্তা নদীতে হেলিকপ্টার পাঠানো হচ্ছে বলে লালমনিরহাট-১৫ বিজিবি ব্যাটালিয়নের পরিচালক লেঃ কর্নেল গোলাম মোর্শেদ জানিয়েছেন।

এর আগে, সোমবার রাত ২টার দিকে দহগ্রাম সীমান্তে তিস্তা নদীতে তিনি নিখোঁজ হন।

বিজিবি সূত্রে জানা গেছে, সোমবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দহগ্রাম বিজিবি ক্যাম্প থেকে বিওপির চার জনের একটি টহল দল মুন্সিপাড়া সীমান্ত এলাকায় তিস্তা নদীর তীরে যায়। ভারতীয় গরু পাচার হয়ে আসার সময় নদীতে পাচারকারীদের ধরতে গিয়ে ল্যান্স নায়েক সুমন মিয়া নিখোঁজ হন। তাকে খুঁজতে ভারতের বিএসএফ-এর সহযোগিতা চাওয়া হয়েছে। তারা স্পিডবোট দিয়ে তল্লাশিতে সহায়তা করছে।

লালমনিরহাট ১৫ বিজিবি ব্যাটালিয়নের পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল গোলাম মোর্শেদ সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ল্যান্স নায়েক সুমন মিয়া রংপুর ৬১ বিজিবি ব্যাটালিয়নের সদস্য। কিন্তু তিনি ১৫ বিজিবি ব্যাটালিয়নের দহগ্রাম ক্যাম্পে সংযুক্ত আছেন।

Pin It

Comments are closed.