গিনিতে খতনার পর দুই কিশোরীর মৃত্যু

 

গিনিতে খতনার পর ১০ বছর বয়সী একটি মেয়ে শিশুর মৃত্যুর মাত্র ক’দিন পর সিয়েরা লিওনে খতনার সময় এক কিশোরীর মৃত্যু হয়েছে।
পুলিশ জানায়, সিয়েরা লিওনের উত্তরে অবস্থিত একটি গ্রামে খতনা করার পর কিশোরী ফাতমাতা তুরেই মারা যায়। এর সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে মেয়েটির ফুপুসহ তিন নারীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

পশ্চিম আফ্রিকার প্রতিবেশী এই দেশ দু’টিতে ব্যাপক হারে নারীর খতনা (এফজিএম) প্রচলিত রয়েছে এবং দেশ দু’টির প্রায় ৯০ শতাংশ নারীর খতনা করা হয়।

সামাজিক সম্পর্ক বিষয়ক ভাইস মিনিস্টার রুগিয়াতু তুরেই বলেন, ”কি কারণে মেয়েটি মারা গেছে সে সম্পর্কে তদন্ত করা হচ্ছে।”

গিনির সমাজ কর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় জানায়, দক্ষিণাঞ্চলীয় বনভূমি এলাকা মাকপোজউয়ে একই ধরনের খতনার পর ১০ বছর বয়সী একটি মেয়ে মারা গেছে। আর এই শিশুটি খতনা শিবিরেই মারা যায়।

গিনি সরকার মেয়ে শিশুদের খতনাকে ‘জঘন্য পদ্ধতি’ হিসেবে উল্লেখ করে তা বন্ধের জন্য আহ্বান জানিয়ে আসছে।

সিয়েরা লিয়ন সম্প্রতি মেয়ে শিশুদের খতনা বন্ধে ২০০৩ সালের আফ্রিকান ইউনিয়ন প্রটোকল অনুমোদ করেছে।

Pin It

Comments are closed.