কুলাঘাটে পুলিশের হুমকি ও লোকলজ্জার ভয়ে বৃদ্ধার আত্মহত্যা

IMG_২০১৬০৮০৭_২১৩৯৪১
পুত্রের অপরাধে বৃদ্ধা বাবাকে পুলিশ অর্থ ফেরত দিতে হুমকি দেয়ায় ও লোকলজ্জার ভয়ে বৃদ্ধা রমজান আলী(৬০) আজ রবিবার ভোররাতে নিজ বাড়ির আঙ্গিনায় থাকা জলপাই গাছে ফাঁসদিয়ে আত্মহত্যা করেছে। এই ঘটনায় কুলাঘাট গ্রামটিতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।
জানা যায়, জেলা সদরের বৃদ্ধা রমজান আলী(৬০) মসল্লার ব্যবসা করে সংসার চালায়। তার একমাত্র পুত্র কবীর হোসেনকে উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত করেছে। সে ঢাকার সানওয়ারা গ্রুপের মালিবাগ শাখা অফিসের ষ্টোরকিপার। পবিত্র ঈদুল ফেতরের ৭/৮দিন পূর্বে কবীর হোসেন একলাখ ১২ হাজার টাকা শান্তিবাগ সানওয়ারা গ্রুপে জমা দেয়ার কথা বলে অফিস ত্যাগ করে। কিন্তু অদ্যাবদি অর্থ জমা দেয়নি। এমন কি কোন খোঁজও নেই। ফলে অর্থ আত্মহত্যা ঢাকায় একটি জিডি করে সানওয়ারা গ্রুপ। এই জিডির সূত্র ধরে ১৫দিন আগে লালমনিরহাট সদর থানার পুলিশের কর্মকর্তা সিদ্দিক ও স্বপনসহ বৃদ্ধা রমজানকে হুমকি দিয়ে আসে অর্থ ফেরত দিন অথবা ছেলেকে এনে দিন। তা না হলে আপনাকে ধরে নিয়ে যাব। বৃদ্ধা রমজানের জামাতা আব্দুল কুদ্দুস পুলিশের হুমকির বিষয়টি মিডিয়া কর্মীদের নিশ্চিত করেছে। আজ রবিবার পুলিশের ১৫ দিনের আল্টিমেটাম শেষ হয়েছে। বৃদ্ধা রমজান হতাশ হয়ে ভোর রাতে আত্মহত্যা করে। আজ রবিবার সদর থানা চত্বরে মসজিদের ঈমামদের নিয়ে জঙ্গি বিরোধী ওপেন হাউজ ডে প্রোগ্রাম হয়। সেখানে একটি বেসরকারি টিভি চ্যালেনের মিডিয়া কর্মীর মাধ্যমে ওসিকে বিষয়টি অবগত হয়। তাৎক্ষনিক প্রতিক্রিয়ায় ওসি মো. রফিকুল ইসলাম জানান, এমন ঘটনায় অভিযোগ পেলে অবশ্যই ব্যবস্থা নেয়া হবে।
দুপুরের পর সদর থানার এসআই আলমগীরের নেতৃত্বে পুলিশ গিয়ে বৃদ্ধার লাশ থানায় নিয়ে আসে। পোষ্টমডেম করে লাশ দেয়া হবে বলে জানান। এই ঘটনায় একটি ইউডি মামলা দায়ের হয়েছে।

Pin It

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।