আসছে নকিয়ার অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন

ডিভাইস নির্মাতা প্রতিষ্ঠান নকিয়া স্মার্টফোন বাজারের সাথে খাপ খাইয়ে নিতে না পারায় প্রতিযোগিতা পিছিয়ে পড়েছে।

নকিয়ার পরিস্থিতি এতটাই শোচনীয় পর্যায় পৌঁছে ছিল যে, ২০১৪ সালে মার্কিন সফটওয়্যার নির্মাতা মাইক্রোসফটের কাছে সেলফোন বিভাগ বিক্রি করে দেয়। তবে বর্তমানে আবার স্মার্টফোন বাজারে ফেরার পরিকল্পনা করছে নকিয়া। চলতি বছরেই অ্যান্ড্রয়েডভিত্তিক নকিয়া ব্র্যান্ডের স্মার্টফোন ও ট্যাবলেট ডিভাইস দিয়ে বাজারে প্রত্যাবর্তন করতে যাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। শুরুতে তিন থেকে চারটি নকিয়া ব্র্যান্ডের ডিভাইস নিয়ে পুনরায় সেলফোন বাজারে ফিরবে নকিয়া কর্তৃপক্ষ। নতুন ডিভাইসগুলোর মধ্যে স্মার্টফোন ও ট্যাবলেট উভয় ধরনের ডিভাইসই থাকবে।

নতুন ডিভাইসগুলো নকিয়ার আগের স্মার্টফোন উৎপাদন কারখানায় তৈরি করা হবে না। ব্র্যান্ড লাইসেন্সিং চুক্তি অনুযায়ী, কোম্পানিটির এ ডিভাইসগুলো তৈরি করবে ফিনল্যান্ডভিত্তিক এইচএমডি গ্লোবাল। চলতি বছরের শুরুর দিকে কোম্পানিটির সাথে চুক্তিবদ্ধ হয় নকিয়া। ওই চুক্তি অনুযায়ী আগামী ১০ বছর নকিয়া ব্র্যান্ডের মোবাইল ফোন ও ট্যাবলেট ডিভাইস তৈরি করবে এইচএমডি গ্লোবাল। নির্ধারিত সময়ের আগেই বাজারে ফিরতে নকিয়া ব্র্যান্ডের দুই অ্যান্ড্রয়েড ফোন তৈরি সম্পন্ন করেছে এইচএমডি গ্লোবাল। ডিভাইসগুলোর একটিতে ৫ দশমিক ২ ইঞ্চি এবং অন্যটিতে ৫.৫ ইঞ্চির টুকে রেজুলেশনের কোয়াড এইচডি ডিসপ্লে ব্যবহার করা হয়েছে। এমনকি ওই দুই ডিভাইস পানি ও ধুলারোধী হবে। বিভিন্ন ফিচার ও মান বিবেচনায় ডিভাইস দু’টি স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৭ ও গ্যালাক্সি এস৭ এজের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ হবে।

বিশ্লেষকদের মতে, নকিয়া এক সময় নিজস্ব অপারেটিং সিস্টেমনির্ভর ফিচার ও স্মার্টফোন দিয়ে জমজমাট ব্যবসা করলেও অবশেষে অ্যান্ড্রয়েড দিয়েই বাজার দখলের পথে নামছে নকিয়া।

Pin It

Comments are closed.