আদিতমারীতে ঋণের দায়ে কৃষকের আত্মহত্যা

নিউজ ডেস্ক : লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলায় ঋণের টাকা শোধ করতে না পেরে খোরশেদ আলী (৪৫) নামে এক কৃষক আত্মহত্যা করেছেন।

সোমবার (৩০ জানুয়ারি) দুপুর আড়াইটার দিকে নিজ বাড়ি থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

খোরশেদ আলী আদিতমারী উপজেলার দুর্গাপুর ইউনিয়নের চওড়াটারী গ্রামের আকরাম আলীর ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, খোরশেদ আলী স্থানীয় বেসরকারি (এনজিও) সংস্থা আরডিআরএস থেকে চার মাস আগে এক লাখ টাকা ঋণ গ্রহণ করেন। ঋণের কিস্তি হিসেবে প্রতি মাসে তাকে ১০ হাজার টাকা করে দিতে হয়।

এছাড়াও সংসারে তার দুই স্ত্রী ও আট সন্তান রয়েছে। তাদের ভরণ-পোষণের জন্য স্থানীয় দাদন ব্যবসায়ীদের কাছ থেকেও ঋণ নিয়েছেন। সম্প্রতি সড়ক দুর্ঘটনায় আহত হয়ে বেকার হয়ে পড়েন খোরশেদ আলী। অসুস্থ থাকলেও কিস্তি তো তাকে দিতেই হবে। আরডিআরএস এর চলতি মাসের কিস্তি পরিশোধের দিন ছিল সোমবার।

অপরদিকে অসুস্থ থাকায় কৃষিপণ্যও মাঠে পড়ে রয়েছে কাটতে পারেন নি। এসব কষ্টে রোববার (২৯ জানুয়ারি) রাতে বাড়ির পাশের একটি কাঁঠাল গাছে গলায় রশি ঝুলিয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি।

ভোরে তার পরিবারের লোকজন ও স্থানীয়রা মরদেহ গাছে ঝুলতে দেখে পুলিশে খবর দেন। পরে পুলিশ এসে মরদেহ উদ্ধার করে।

ঋণ গ্রহণের সত্যতা নিশ্চিত করে আরডিআরএস দুর্গাপুর শাখার ব্যবস্থাপক হামিদুল হক বলেন, তাকে এক লাখ টাকা ঋণ দিলে তিনি ৩ মাসের কিস্তি দিয়েছেন। বাকীটা বকেয়া রয়ে গেছে।

আদিতমারী থানার উপ পরিদর্শক নজরুল ইসলাম বলেন, ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ লালমনিরহাট সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

Pin It

Comments are closed.