অতিরিক্ত ফেসবুকিং যৌন জীবনের জন্য ক্ষতিকর!

পড়াশুনোর অবসরে কিংবা অফিসে কাজের ফাঁকে টুক করে একটু আধটু ফেসবুকে লগ ইন করে নেন, এমন মানুষ বিরল নন। এর ফলে যে কাজে কিংবা পড়াশুনোর ক্ষতি হয়, সেটা বলাই বাহুল্য। তবে ঘনঘন সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং ওয়েবসাইটে উঁকি মারার অভ্যাস যে যৌন জীবনেও ক্ষতি ডেকে আনছে, তা হয়ত এতদিন আপনার কাছে অজানাই ছিল‌

এমনটাই দাবি করছেন, বিশেষজ্ঞরা। তারা বলছেন, শারীরিক ঘনিষ্ঠতার মধ্যেই এক-‌আধবার ফেসবুকে লগ ইন করে নেন, নারী-‌পুরুষ নির্বিশেষে এমন মানুষের সংখ্যাও নাকি কম নয়। কিন্তু এর প্রভাব বেশ সুদূরপ্রসারী। এমনকি কুফল পড়তে পারে মানসিক স্বাস্থ্যের ওপরেও। এই কুঅভ্যাস ত্যাগ করার জন্য আজ রইলো কিছু পরামর্শ-।

১। সবার প‌্রথমে ইন্টারনেট সংক্রান্ত কাজকর্মের সময়সীমা নির্ধারণ করে নিন। ই-‌মেল দেখা ধরনের জরুরি কাজকর্ম সেরে নিন একটা নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যেই। সেই সময়ের পরেও যদি কম্পিউটারে ইন্টারনেট সার্ফিং করতে হয়, তাহলে ফেসবুক বা টুইটারে লগ ইন করে ফেলার সম্ভাবনা কিন্তু থেকেই যায়।

২। নজর দিন সঙ্গী বা সঙ্গিনীর ওপরেও। তার সঙ্গে গল্প করুন। তার কথা শুনুন। নিজে সারাদিন কী করলেন, সেটাও বলুন তাঁকে। দেখবেন সময় ভালই কাটবে।

৩। একসঙ্গে সময় কাটাতে গিয়ে মোবাইল ফোনটি হাতের কাছে রাখবেন না। পারলে বন্ধই করে রাখুন।

৪। যদি নিতান্ত ফোন খোলা রাখতেই হয়, তাহলে ডেটা কানেকশন অফ করে রাখুন। যাতে ফেসবুকের নোটিফিকেশন এলেও সেদিকে দৃষ্টি না যায়।‌‌

Pin It

Comments are closed.